বাংলা আবাস যোজন 2020 | Bangla awas yojana 2020-21

বাংলা আবাস যোজন  আপনি কি জানেন বাংলা আবাস যোজনায়  ঘর কিভাবে পাবেন বা বাংলা আবাস যোজনা নাম নথিভুক্ত করবেন কিভাবে বা আবাস যোজনা কত টাকা পাবেন এবং বাংলা আবাস যোজনা লিস্ট দেখবেন সম্পূর্ণ তথ্য এখানে রয়েছে

 Bangla awas yojana 2020-21



বাংলা আবাস যোজন-2


 গত কয়েকদিন আগে পশ্চিমবঙ্গ মুখ্যমন্ত্রী মাননীয়া মমতা ব্যানার্জি তিনি ঘোষণা করেছেন। বাংলায় যত গরিব মানুষ রয়েছে, যাদের ঘর বানানো সক্ষম নন, তাদের জন্য একটা নতুন প্রকল্প চালু Bangla Awas Yojana 2020 চলেছে। বাংলা আবাস যোজনা 2020। এই আবাস যোজনা যারা প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় কোনো কারণবশত কোন ঘর বা আবাস পাইনি সেই সব ব্যক্তিরা এই আবাস যোজনা নামগুলো নথিভূক্ত করতে পারবেন। বাংলা আবাস যোজনার জন্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি কয়েক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে । এই প্রকল্প টি খুব তাড়াতাড়ি শুরু হবে বলে জানা যাচ্ছে।

  বাংলা আবাস যোজনা ঘর কারা পাবেন ?

  এই বাংলা আবাস যোজনা যাদের নাম গুলো নথিভুক্ত হবে সেগুলো আপনাদের জানা দরকার। কারণ দেখা গিয়েছে যাদের পাকা বাড়ি রয়েছে তারা অনেক মানুষ আবেদন করে ফেলে। Banglar Awas Yojana list 2020 এতে অনেক বিপত্তি আছে। বাংলা আবাস যোজনা আবেদন করার আগে Bangla Awas Yojana list 2019 West Bengal এই বিষয়গুলি খুব জেনে নেওয়া দরকার।
  • যেসব ব্যক্তির কোন পাকা ঘরে নেই শুধু তারাই আবেদন করতে পারে।
  • যেসব ব্যক্তির বাৎসরিক ইনকাম 1 লাখ টাকার নিচে।
  • আপনাকে বিপিএল  রেশন কার্ড থাকা বাঞ্ছনীয় হতে হবে।
  • পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে স্থায়ী বাসিন্দা থাকা দরকার।
  • আপনার নামে জমিনের দলিল কিংবা রেকর্ড থাকা অবশ্য প্রয়োজন আছে।
  • সরকারি চাকুরিজীবি পশ্চিমবঙ্গ আবাস যোজনা  নাম নথিভুক্ত করতে পারবে না।
  এই 6 টি বিষয় মনে রাখে আপনাকে পশ্চিমবঙ্গ আবাস যোজনা নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন।

  বাংলা আবাস যোজনা নাম নথিভুক্ত কিভাবে করবেন
  বাংলা আবাস যোজনা নাম  নথিভুক্ত করার জন্য আপনাকে অনেকগুলো নির্দেশ আছে যেগুলো উপরে দেওয়া রয়েছে। Bangla Awas Yojana application form এর মধ্যে আপনি যদি আসেন তাহলে আপনার গ্রাম পঞ্চায়েত অথবা গ্রাম প্রধান অফিসে গিয়ে যোগাযোগ করতে পারবেন। বাংলা আবাস যোজনা কাজ গত কয়েকদিন আগে চালু হয়ে গিয়েছে। অনেক জায়গায় এই নথিপত্রগুলো গ্রামের পঞ্চায়েত, গ্রাম প্রধান,  বিডিও অফিস থেকে কিছু মানুষ গ্রামে গ্রামে গিয়ে ঘর পরিদর্শন করে। নামের লিস্ট তৈরি করার জন্য এরা কাজ চালু করে দিয়েছে।

জানা গিয়েছে বাংলা আবাস যোজনার নথিপত্র গুলি নিয়ে একটা লিস্ট ইতিমধ্যে আপনার স্থানীয় বিডিও অফিসে জমা পড়ে গিয়েছে। Bangla Awas Yojana application form আপনি যদি নাম নথিভূক্ত করাতে চান তাহলে আপনার স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত কিংবা গ্রাম প্রধানের সঙ্গে যোগাযোগ করে নাম নথিভুক্ত করাতে পারেন।

বাংলা আবাস যোজনা লিস্ট কিভাবে দেখবেন

 বাংলা আবাস যোজনা লিস্ট এখনো বেরোয়নি।  bangla awas yojana new list 2020-21 বাংলা আবাস যোজনা লিস্ট যদি আসে আপনাদের, গ্রাম পঞ্চায়েত এবং গ্রাম প্রধান থেকে জানানো হবে। এই লিস্ট অনলাইন প্রকাশ নাও হতে পারে। অনলাইন লিস্ট যদি আসে, তাহলে এই ওয়েবসাইটটিতে থেকে আপনাদের জানিয়ে দেওয়া হবে। bangla awas yojana new list 2020-21 যদি এই লিস্ট এসে থাকে, তাহলে আপনার গ্রাম পঞ্চায়েত কিংবা বিডিও অফিস থেকে বাড়ি বাড়িতে গিয়ে জানিয়ে আসবে। আরো কিছু নথিপত্র জমা দেওয়ার জন্য আবেদন করা হইবে।

 বাংলা আবাস যোজনা 2020 কত টাকা পাবে

 জানা গিয়েছে বাংলা আবাস যোজনার জন্য প্রত্যেকটা  আবেদনকারী পাবে এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা। কিন্তু এই বিষয়ে স্পষ্ট কোন তথ্য জানা যায়নি। কারণ অনেক ওয়েবসাইট আর্টিকেল লিখে রেখেছে 2 লক্ষ 40 হাজার টাকা পাবে আবেদনকারীরা। Bangla Awas Yojana new list আমাদের কাছে পাওয়া খবর অনুযায়ী, প্রত্যেকটা বেনিফিসারী পাবে 1 লক্ষ 20 হাজার টাকা।  এই এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা কয়েকটি ইন্সটলমেন্টে দেওয়া হইবে। আশা করা যাচ্ছে বাংলা আবাস যোজনা প্রথম কিস্তি যে টাকা আসবে প্রায় পঞ্চাশ হাজারের মতো

 দ্বিতীয় কিস্তি যে টাকাটা আসবে, সেটা 40 হাজারের মতো। বাংলা আবাস যোজনা আপনার যদি ঘর কমপ্লিট হয়ে যায়, শেষ ইনস্টলমেন্ট  পাবে 10 10 হাজার টাকা। আপনারা ভাবছেন আর কুড়ি হাজার টাকা কিভাবে পাব? এটার জন্য আপনার কাছে জব কার্ড থাকতে হইবে। ওই জব কার্ডের মাধ্যমে আপনাকে একশ খানা মেন্টেন এর  টাকা ব্যাংক একাউন্টে প্রেমেন্ট করা হইবে।

 যদি আপনি কোনো কারণবশত  জব কার্ডে  50 টা কাজ করে ফেলেছেন, তাহলে আপনি 50 খানা মেন্টেন এর দাম পাবেন। হতে পারে আপনি একশো খানা ও দাম পেতে পারেন। Bangla Awas Yojana new  এটা কোন প্রশ্ট ভাষায় জানা যায়নি। সম্পূর্ণ তথ্য এলে আপনাদের নিশ্চয়ই জানানো হইবে।

 বাংলা আবাস যোজনার টাকা কবে থেকে  ব্যাংক অ্যাকাউন্টে আসবে

 বাংলা আবাস যোজনা  টাকা যে বরাদ্দ করা হয়েছে, সেই টাকা একাউন্টে আসার জন্য একটু টাইম লাগবে বলে জানা গিয়েছে। কারণ প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার মেয়াদ এখনো শেষ হয়নি। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা যতগুলো বাড়ি এসেছে, সবগুলো কমপ্লিট হতে দুই হাজার কুড়ি অক্টোবর নভেম্বর মাস পর্যন্ত বা ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত লেগে যেতে পারে Bangla Awas Yojana new list। তাছাড়া করুনা  ভয়াবহ সময় চলছে, তাই দেরি হতে পারে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা কম্পিলিট হলে বাংলা আবাস যোজনা সুরু হবে। 

Previous
Next Post »

13 মন্তব্য(গুলি)

Click here for মন্তব্য(গুলি)
Unknown
admin
১৭ অক্টোবর, ২০২০ ১:৫৯ AM ×

দিদি আমি আপনার কাছে একটি আবাস যোজনা ঘর চেয়েছিলাম

Reply
avatar
Unknown
admin
২২ ডিসেম্বর, ২০২০ ৮:১৫ AM ×

দি দি সবার ঘর হয়ে গেল আমদের কি আর হবে না...

Reply
avatar
Unknown
admin
২৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ১০:১৮ PM ×

Didi Amer Bari honay place help me my village nanoor birbhum khujutipara

Reply
avatar
Unknown
admin
৭ জানুয়ারী, ২০২১ ১:৪৭ PM ×

Didi amr baba nei, ma bidhoba, ami panchayet r bdo office a gia jogajog korechi, tara firiye diache, ami loker dokane kaj kori, amar matir bari, opore futo tiner chal, borshakale jol pore
Vill. - 91/21 west brahmapara,
P.O. - Simurali, Bdo - chakdaha, Dist, - Nadia, pin - 741248

Reply
avatar
Unknown
admin
১২ জানুয়ারী, ২০২১ ৮:৩৬ AM ×

আমার মাটির বাড়ি মাটিই রয়ে গেছে। পাকাবাড়ি কি আদৌ হবে না।

Reply
avatar
Unknown
admin
১২ জানুয়ারী, ২০২১ ৬:২২ PM ×

আমাদেরকে গোবর দেওয়া হয়নি আমাদেরকে অন্যায় করাচ্ছে

Reply
avatar
Unknown
admin
১২ জানুয়ারী, ২০২১ ৬:২২ PM ×

গ্রামের সবার ঘর এসছে আমাদের ঘর আসেনি

Reply
avatar
Unknown
admin
১২ জানুয়ারী, ২০২১ ৬:৩২ PM ×

আমাদের করলিয়া গ্রাম বসিরহাট উত্তর 24 পরগনা আমাদের এই করলিয়া গ্রামের অনেককে ঘর থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে

Reply
avatar
Unknown
admin
১৯ জানুয়ারী, ২০২১ ৮:৫০ PM ×

দিদি আপনার কাছে আমার অনুরোধ বিপিএল থাকা সত্ত্বেও রেশন কার্ড আর কে এস ওয়ান এসেছে, আমি বাংলা আবাস যোজনায় ঘড়ের আবেদন করতে পারবোনা ?

Reply
avatar