শ্রমিক কার্ড অনলাইন আবেদন | shramik card online registration | e shramik registration

 কেন্দ্র সরকার শুরু করল শ্রমিক কার্ড অনলাইন আবেদন প্রসেস বা e shram card online registration প্রক্রিয়া। আজকে আমরা আলোচনা করব "shramik card online registration" কিভাবে করবেন, আপনি কোথায় e shram portal online আবেদন করতে পারবেন, shram card কি? সম্পূর্ণ তথ্য এই আর্টিকেলের মধ্যে পাবেন।

আপনি হয়তো নিশ্চয়ই জানেন ভারতবর্ষে পরিযায়ী শ্রমিক এর সংখ্যা দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী গরিব অসংগঠিত শ্রমিকদের জন্য e shram portal online শুরু করেছে বা eshram yojana শুরু করা হয়েছে। ই-শ্রম যোজনা মাধ্যমে পাবে দুর্ঘটনাজনিত মেডিকেল ইন্সুরেন্স এবং পরবর্তীকালে যত ধরনের সুযোগ সুবিধাগুলি আসবে অসংগঠিত শ্রমিকর লাভ পেতে থাকবে। যদি আপনি একজন অসংগঠিত পরিযায়ী শ্রমিক হয়ে থাকেন তাহলে shramik card online registration করে দুর্ঘটনাজনিত  অর্থ অনুদান স্বরূপ দু'লক্ষ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন।

shramik card কি বা কাকে বলে? 

শ্রমিক কার্ড বা ই-শ্রাম হলো সাধারণ একটি  স্বাস্থ্য বীমা কার্ড এর মত। এই কার্ড এর মাধ্যমে অসংগঠিত  শ্রমিকরা একটি ছাতার নিচে আসতে পারবে এবং কোন দুর্ঘটনা কারণে বীমা স্বরূপ 2 লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। যে সংগঠনের মাধ্যমে অসংগঠিত শ্রমিকরা একটি নির্দিষ্ট সংগঠনের নাম নথিভুক্ত করে ভারত সরকার দ্বারা আবেদনকারীদের যে কার্ড  প্রদান করা হবে তাকে shramik card বলে বা ই-শ্রম কার্ড বলে।

shramik card online registration

shramik card online registration যোগ্যতা কি? 

  1. শ্রমিক কার্ড আবেদন করার জন্য কয়েকটা যোগ্যতা থাকলে আপনি ই-শ্রম কর্ড আবেদন করতে পারে।
  2. অসংগঠিত শ্রমিক হতে হবে
  3. যে কোন রাজ্যে স্থায়ী ও অস্থায়ী বাসিন্দা আবেদন করতে পারবে।
  4.  16 থেকে 59 পর্যন্ত নারী পুরুষ আবেদন করতে পারবে।ছ

shramik card online registration কারা করবে?

ইশ্রম বা শ্রমিক কর্ডের জন্য আবেদন করার আগে জেনে নিতে হবে আপনি এইসব কাজের সঙ্গে যুক্ত আছেন কিনা। নিম্নলিখিত তথ্যগুলি দেখে নিন।

    • গৃহ নির্মাণ কর্মী
    • স্ব-নিযুক্ত কর্মী 
    • অসংগঠিত শ্রমিক
    • প্রতিদিন কর্মরত মজুরি শ্রমিক
    • ESIC যুক্ত নন এমন কর্মী
    • EPFO যুক্ত নন এমন কর্মী

 shramik card online registration কি ডকুমেন্ট লাগবে? 

যদি আপনি শ্রমিক কার্ডের জন্য আবেদন করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে এইসব ডকুমেন্টগুলি পাশে রাখতে হবে যাতে আপনার আবেদন করার জন্য কোন বিঘ্ন না ঘটে। নিম্নলিখিত ডকুমেন্টগুলি দেখে নিন।

  • আধার কার্ড
  • আধার কার্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকা ফোন নাম্বার
  • স্কুল সার্টিফিকেট থাকলে পাশে রাখবেন
  • ইনকাম সার্টিফিকেট থাকলে পাশে রাখবেন
  • ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার এবং আইএফএসসি কোড

shramik card online registration কোথায় করবেন?

যদি আপনার কাছে একটি স্মার্টফোন থাকে তাহলে খুব সহজেই আপনি শ্রমিক কার্ডের রেজিস্ট্রেশন বা শ্রমিক কার্ডের আবেদন করতে পারবেন। আপনি আপনার মোবাইলে ক্রোম ব্রাউজার এ গিয়ে টাইপ করবেন eshram. gov. In এবং সার্চ দিবেন। সার্চে প্রথম রেজাল্ট এ ক্লিক করে আপনি এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট যেতে পারবেন বা REGISTER on e-shram এখানে ক্লিক করুন । একটু নিচের দিকে এলে দেখতে পাবেন REGISTER on e-shram এবং এখানে ক্লিক করে আপনি অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

shramik card online registration করা পদ্ধতি? 

  1. আপনি আপনার মোবাইল থেকে খুব সহজে শ্রমিক কার্ড আবেদন করতে পারবেন  বা e shramik registration করাতে পারবেন। 
  2. আপনি আপনার মোবাইল থেকে যে কোন একটি ব্রাউজার অপেন করে নিবেন এবং টাইপ করবেন e shram portal
  3. সার্চ রেজাল্টের প্রথম লিঙ্কে ক্লিক করে আপনি এই ওয়েবসাইটের মধ্যে যেতে পারবেন।
  4. নতুন উইন্ডো ওপেন হলে নিচের দিকে REGISTER on e-shram এ ক্লিক করবেন।
  5. আধার কার্ডের সঙ্গে লিংক করা ফোন নাম্বার ফাঁকা বক্সের মধ্যে বসানো এবং ওটিপি অপশন এ ক্লিক করুন।
  6.  ওটিপি বসানোর ফাঁকা ঘরে মোবাইলে আশা OTP বসিয়ে কন্টিনিউ করুন।
  7. নতুন পেজ ওপেন হলে আপনি আপনার আধার কার্ডের নাম্বার চারটি করে  নম্বর 3 ঘরের মধ্যে বসানো এবং ওটিপি অপশন এ ক্লিক করুন।
  8. আধার কার্ডের সঙ্গে লিংক করা মোবাইল নাম্বারে  ওটিপি আসবে বসিয়ে সেভ কন্টিনুয়ে করুন।
  9.  আধার কার্ডে আপনার সমস্যা তথ্য ফটো সমেত নতুন উইন্ডো দেখতে পাবেন এবং নিচের দিকে এসে save & continues তে ক্লিক করুন।
  10. নতুন পেজ ওপেন হলে personal details এ ইমারজেন্সি মোবাইল নাম্বার, মেরেজ স্ট্যাটাস, বাবার নাম, সোশ্যাল ক্যাটাগরি বসিয়ে সেভ এন্ড কন্টিনুয়ে তে ক্লিক করুন।
  11. Nominee details নতুন উইন্ডোজ এর মধ্যে নমিনির নাম, জেন্ডার, রিলেশন এবং নমিনির জন্মতারিখ বসিয়ে নিচের দিকে save and continue তে ক্লিক করুন।
  12. Address details নতুন উইন্ডো খুললে দেখতে পাবেন আপনার হোম অ্যাড্রেস এবং কারেন্ট অ্যাড্রেস নিচের দোয়া ফাঁকা ঘর গুলিতে সঠিকভাবে বসাবেন। এছাড়া বর্তমান অ্যাড্রেস এবং হোম অ্যাড্রেস এক যদি হয়  সাইড এ বক্সে  টিক মার্ক দিয়ে  সেভ  হ্যান্ড কন্টিনুয়ে তে ক্লিক করবেন।
  13. Qualifications and income details নতুন উইন্ডোতে দেখতে পাবেন এবং এখানে কত ক্লাস পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন, সার্টিফিকেট, আপনার মাসে ইনকাম কত এবং ইনকাম সার্টিফিকেট ঠিকঠাক ভাবে বসিয়ে saved and continue তে ক্লিক করুন।
  14. Occupation details উইন্ডোর নতুন ওপেন হলে আপনি আপনার পেশা সমস্ত নতুন ডিটেলস বসাবেন। যেমন প্রাইমারি অকুপেশন, কাজ করার অভিজ্ঞতা কত বছর, অভিজ্ঞতা কোন সংস্থা মাধ্যমে নিয়েছেন কিনা, আলাদা কোন অভিজ্ঞতা আছে কিনা এবং এটা ট্রেনিং আপনি যদি নিয়ে থাকেন  তার তথ্য দেবেন। নিচের দিকে সেভ এন্ড continue-তে ক্লিক করবেন।
  15. Bank account details পেজ ওপেন ওপেন হলে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ডিটেইলস সঠিকভাবে পূরণ করবেন। যদি আপনার  আধার কার্ডের সঙ্গে লিংক থেকে ব্যাংক একাউন্ট যোগ করতে চান তাহলে যেমন আছে তেমন থাকতে দেবেন এ ছাড়া যদি অন্য কোন এখন যোগ করতে চান তাহলে yeah করবেন ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার, অ্যাকাউন্ট হোল্ডার এর নাম, ব্যাংক IFSC কোড, ব্যাংকের নাম এবং ব্রাঞ্চ নাম দিবেন।
  16. Declaration টি ঠিকঠাক ভাবে দেখবেন এবং চাইলে একবার পড়ে নিতে পারেন, এরপর আই এগ্রি অপশনটিতে ক্লিক করে নিচের দিকে সেভ এন্ড কনফার্ম করবেন।

আপনার সামনে নতুন একটি উইন্ডো ওপেন হবে। গুণধর এর মধ্যে আপনার দেওয়া তথ্য গুলি চলে আসবে। কোন বিষয়ে যদি ভুল থাকে এডিট করে সঠিক করে নিতে পারবেন এবং উপর দিকের কোণে e shram card ডাউনলোড করে নিন।

👉আয়ুষ্মান ভারত Health id card online apply জন্য ক্লিক করুন  👈

এইভাবে আপনি আপনার নিজের e shramik registration করে নিতে পারবেন।

কেন্দ্র সরকার শ্রমিক কার্ড অনলাইন আবেদন প্রসেস বা e shram card online registration প্রক্রিয়া জানতেপারলেন। আজকে আমরা আলোচনা করলাম "shramik card online registration" কিভাবে করবেন, আপনি কোথায় e shram portal online আবেদন করতে পারবেন, shram card কি? সম্পূর্ণ তথ্য এই আর্টিকেলের মধ্যে। আশা করি আপনাদের বুঝাতে পেরেছি e shram portal বিষয়ে। সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

Previous
Next Post »